মান্দার সতীহাট যাত্রী ছাউনীর ছাউনী নেই, নেই কোন পাবলিক টয়লেট

সুলতান আহমেদ
নওগাঁ প্রতিনিধিঃ

নওগাঁর মান্দা উপজেলার সতীহাটে অবস্থিত যাত্রী সাধারণের বিশ্রামের জন্য নির্মিত যাত্রী ছাউনিটি দীর্ঘদিন ধরে অযত্ন, অবহেলা এবং বেদখল হয়ে পড়ে রয়েছে। গত আশির দশকে যাত্রী ছাউনীটি নির্মিত হলেও এখন পর্যন্ত কোন সংস্কার কাজ হয়নি। এতে যাত্রী সাধারণকে দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

গত ঈদুল ফিতরের দিনের ঝড়ে অনেকগুলো টিন উড়ে গেলে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় যে, যাত্রী ছাউনীটির বেশিরভাগ টিন নেই আবার যেগুলো অবশিষ্ট রয়েছে সেগুলো নষ্ট হয়ে গেছে। ফলে সেখানে কোনো যাত্রী জনসাধারনের বিশ্রাম করার বা বৃষ্টির দিনে আশ্রয় নেওয়ার কোন সুযোগ নেই।

বর্তমানে ওই যাত্রী ছাউনির সামনে চার্জার/ভ্যান স্টেশন করায় সেটি এখন ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এছাড়া বাসস্টপের আশেপাশে নেই কোন পাবলিক টয়লেট, ফলে মাঝে মধ্যেই বেকায়দায় পড়েন দূরদূরান্তের যাত্রী সাধারন। যাত্রী ছাউনীর নিচে পান বিড়ির দিয়ে বসে আছেন জিতেন্দ্র চন্দ্র পাইক নামের একজন।

জিতেন্দ্র চন্দ্র পাইক বলেন, আমি দীর্ঘদিন যাবত এখানে দোকান করে জীবিকা নির্বাহ করি। আমার ৩টি অপারেশন করা আছে বিধায় আমি কোন কাজ কর্ম করতে পারিনা।

আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) ফাউন্ডেশন সভাপতি রামচন্দ্র মন্ডল বলেন, যাত্রী ছাউনীটি দ্রুত সংস্কার করা প্রয়োজন। এছাড়া এখানে পাবলিক টয়লেট এবং পানীয় জলের জন্য একটি টিউবয়েল বসানো খুবই জরুরী।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ৫নং গনেশপুর ইউ’পি চেয়ারম্যান হানিফ উদ্দিন মন্ডল বলেন, যাত্রী ছাউনীর বিষয়টি আমি উপজেলাতে প্রত্যেক মাসিক মিটিংয়েই তুলে ধরি। যাত্রী ছাউনীটি ওখান থেকে স্থানান্তরিত হবে বিধায় এটার সংস্কার কাজ হচ্ছে না। কিন্তু যাত্রী ছাউনীটির পশ্চিম পার্শ্বে নতুন বাসস্টপের কাজ শুরু হয়েছে, সে কাজ শেষ হলেই খুব দ্রুত নতুন যাত্রী ছাউনীর কাজ শুরু হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *