বাংলাদেশের পাসপোর্টের মান পেছালো আরও দুই ধাপ

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পাসপোর্টের মূল্যায়ন সূচক তালিকায় প্রতি বছরই নিচে নামছে। ২০২০ সালে বাংলাদেশের অবস্থান নিচে নেমে গেছে। আন্তর্জাতিক পাসপোর্টে দুই ধাপ পিছিয়েছে বাংলাদেশের পাসপোর্টের মান। ২০১৯ সালে বাংলাদেশে পাসপোর্টের মান ছিল ৯৯তম।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংস্থা দ্য হ্যানলি অ্যান্ড পার্টনার্স এ র‌্যাংকিং প্রকাশ করেছে।

পরিসংখ্যানে দেখা যায়, ২০০৬ সালে ছিল ৬৮তম। এর পরের বছর তা আরও দুই ধাপ নিচে নেমে যায়। এভাবে প্রতি বছরই কমছে বাংলাদেশের পাসপোর্টের মান। গত বছর বিশ্বের বাংলাদেশের পাসপোর্টের র‌্যাংকিং ছিল ৯৯তম। এবার তা আরও দুই ধাপে নেমে গিয়ে তা হয়েছে ১০১তম।

গ্লোবাল র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষস্থানে রয়েছে জাপান। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে সিঙ্গাপুর। তৃতীয় স্থানে যৌথভাবে রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া ও জার্মানি। চতুর্থ অবস্থানে যৌথভাবে রয়েছে ইতালি, ফিনল্যান্ড ও লুক্সেমবার্গ। পঞ্চম স্থানে যৌথভাবে ডেনমার্ক ও অস্ট্রিয়া। এছাড়া সুইডেন, ফ্রান্স, পর্তুগাল ও নেদার‌ল্যান্ডস যৌথভাবে ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে।

বিশ্বে ভিসামুক্ত চলাচল স্বাধীনতার ওপর গবেষণা করে প্রতিবছর এ সূচক প্রকাশ করে আসছে দ্য হ্যানলি অ্যান্ড পার্টনার্স। গত ৭ জুলাই এ তালিকা প্রকাশ করা হয়।

আন্তর্জাতিক বিমান পরিবহন সংস্থার (আইএটিএ) ভ্রমণ তথ্যভাণ্ডারের সহযোগিতা নিয়ে এ সূচক তৈরি করা হয়েছে। সূচকে বিশ্বের সবচেয়ে কম দামি পাসপোর্টধারী দেশ আফগানিস্তান (১০৯তম)। এছাড়া ইরাক ১০৮তম, সিরিয়া ১০৭তম ও পাকিস্তান ১০৬তম অবস্থানে রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *